খবরের বিস্তারিত...

FB_IMG_1640184728161

প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখছেন- আল্লামা ছৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী

ডিসে. 22, 2021 সাংগঠনিক খবর

নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলসমূহের পরামর্শের ভিত্তিতে একটি সার্চ কমিটি গঠন করার দাবী –ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর ৩১ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর সভায় আল্লামা ছৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী।

ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান পীরে কামেল রাহবারে সিয়াসত আল্লামা ছৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী বলেছেন-গণতান্ত্রিক সমাজের মূল চালিকাশক্তি হচ্ছে নির্বাচন। নির্বাচনের মধ্য দিয়েই জনমতের প্রতিফলন ঘটে। অথচ নির্বাচন এর মত এহেন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি বাংলাদেশের রাজনীতিতে অনেকটা প্রহসনে পরিণত হয়েছে। ব্যালট বাক্স ছিনতাই, অনৈতিক পেশীশক্তির চর্চা, কেন্দ্র দখল, ক্ষমতার প্রভাব বিস্তার, ভোটকেন্দ্রে ত্রাস সৃষ্টির মাধ্যমে ভীতির সঞ্চার করা, কালো টাকার অবাধ ব্যবহারসহ ইত্যাকার নানাবিধ কারণে গোটা নির্বাচনী ব্যবস্থাপনা-ই আজ সংকটাপন্ন। ফলে নির্বাচনী আমেজ-আবহ, ভাবগাম্ভীর্যতা ও উৎসবমুখরতা ক্রমশঃ বিলুপ্তির দিকে। উপরন্তু এক্ষেত্রে প্রতিনিয়তই তৈরী হচ্ছে জনগণের আস্থার সংকট। এমনকি যার নেতিবাচক পরিণতিতে ক্রমাগত ভোটকেন্দ্র বিমুখ হয়ে পড়ছে ভোটাররা। যা ভবিষ্যৎ গণতন্ত্রের জন্য অশনি সংকেত বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন- বর্তমান নির্বাচন কমিশন একটি ঠুঁটো জগন্নাথ। তাই নিবন্ধিত সকল রাজনৈতিক দলের পরামর্শের ভিত্তিতে নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য একটি সার্চ কমিটি গঠন করার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় মহাসচিব শায়খুল হাদিস অধ্যক্ষ আল্লামা জয়নুল আবেদীন জুবাইর বলেছেন- জনরায়ের প্রতিফলনে যদি কোনরূপ ব্যত্যয় ঘটে,তাহলে অনিবার্যভাবে জন্ম নেয় ফ্যাসিবাদ। সৃষ্টি হয় হানাহানি-মারামারি। ক্রমাগতভাবে বৃদ্ধি পায় সন্ত্রাস-নৈরাজ্য। বিনষ্ট হয় রাজনৈতিক সুস্থতা ও স্থিতিশীলতা। জনজীবনে বিরাজ করে ক্ষোভ-অশান্তি। সর্বোপরি দেশ ও জাতি নিপতিত হয় ভবিষ্যৎ
অনিশ্চয়তার দিকে।

উদ্বোধক এড. আবু নাছের তালুকদার বলেছেন- দেশ এখন স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছে, অথচ জাতীয় জীবনে এখনও সুস্থতা ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা পায় নি। দেশের রাজনৈতিক দলসমূহ কেউ ক্ষমতায় আরোহন ও কেউ ক্ষমতায় টিকে থাকার প্রদত্ত কমিটমেন্ট। প্রায় সকলেই আত্ন ও দউদগ্র বাসনায় বেমালুম ভুলে গিয়েছে জাতির প্রতিলকেন্দ্রিকতার অশুভ প্রভাব-বলয়ে আবদ্ধ হয়ে পড়েছে।

সভাপতি আলহাজ্ব এইচ এম মুজিবুল হক শাকুর বলেছেন- চট্টগ্রাম দেশের সিংহভাগ রাজস্বের যোগানদাতা হলেও উন্নয়ন -অগ্রগতির ক্ষেত্রে এখনও অপেক্ষাকৃত পশ্চাৎপদ। তিনি চট্টগ্রামের দূঃখ জলাবদ্ধতা নিরসনে সরকারের পক্ষ থেকে বাস্তবভিত্তিক পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য উদাত্ত আহবান জানান।

ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ চট্টগ্রাম জেলার উদ্যোগে অদ্য ২১ ডিসেম্বর ‘২১ইং বুধবার বিকেল ৪টায় সংগঠনের ৩১ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তারা উপরোক্ত মন্তব্য করেন। চট্টগ্রাম মহানগর ইসলামিক ফ্রন্ট এর সভাপতি আলহাজ্ব এইচ এম মুজিবুল হক শাকুর এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- পীরে কামেল রাহবারে সিয়াসত আল্লামা ছৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় মহাসচিব শায়খুল হাদিস অধ্যক্ষ আল্লামা জয়নুল আবেদীন জুবাইর। উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন – এড. আবু নাছের তালুকদার। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অধ্যক্ষ আল্লামা এস এম ফরিদ উদ্দীন, অধ্যক্ষ আল্লামা রফিক উদ্দীন সিদ্দিকী, পীরে তরিকত আল্লামা সালাহউদ্দিন লতিফী, আল্লামা কাজী জসিম উদ্দীন, এম সোলায়মান ফরিদ, স ম হামেদ হোসাইন, মাওলানা ছৈয়দ জসিম উদ্দিন তৈয়বী, অধ্যক্ষ এম ইব্রাহীম আখতারী, স ম শহিদুল হক ফারুকী, অধ্যাপক ছৈয়দ হাফেজ আহমদ, মাওলানা জাকের আহমদ সিদ্দিকী, খান এ সবুর, আলহাজ্ব এম ওয়াহেদ মুরাদ। সভা পরিচালনা করেন- মাওলানা এ এম মঈনউদ্দীন চৌধুরী হালিম। আরও বক্তব্য রাখেন- মাওলানা রফিকুল ইসলাম নেজামী, মাওলানা মোজাম্মেল হোসাইন, ডাঃ হাসমত আলী তাহেরী, শহিদুল্লাহ সাদা, আবু ছাদেক ছিটু, কফিল উদ্দীন রানা ও আহমদ রেজা প্রমূখ।

Comments

comments

Related Post