খবরের বিস্তারিত...

126391815_398778824603818_6053967353954628809_n

বঙ্গবন্ধুর স্মরণে ভাস্কর্যের পরিবর্তে জনকল্যাণমূলক কীর্তি প্রতিষ্ঠা করার দাবী–ইসলামিক ফ্রন্ট

নভে. 23, 2020 বিবৃতি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মরণে ভাস্কর্য নয়, জনকল্যাণমূলক কীর্তি প্রতিষ্ঠা করুন।
______ ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ।।
ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের চেয়ারম্যান আল্লামা সৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী ও মহাসচিব আল্লামা জয়নুল আবেদীন জুবাইর বলেছেন, ৯০ শতাংশ মুসলমানের দেশ বাংলাদেশ আবহমান কাল ধরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও জাতিগত ঐতিহ্যের এক বৈশ্বিক রোল মডেল হিসেবে বিশ্বমাঝে আসন করে নিয়েছে। এদেশে সকল ধর্ম বর্ণ গোত্র নির্বিশেষে সকল মানুষ কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দেশ গড়ার কাজে আত্মনিয়োগ করেছেন। এদেশে হাজার বছর ধরে সুফি আউলিয়াগণ শান্তি, সম্প্রীতি ও মৈত্রীর বন্ধন স্থাপন করেছেন। যার যার ধর্মমত অনুসারে সহাবস্থানের নীতিতে বিশ্বাসী এদেশের মানুষ। সম্প্রতি বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতার স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ভাস্কর্য স্থাপন নিয়ে একটি মহল দেশে অনাকাঙ্খিত অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টির পায়তারা চালাচ্ছে। কয়েকদিন আগে ঢাকায় একযোগে ১১টি বাসে অগ্নিসংযোগ তার জ্বলন্ত প্রমান। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একজন সুফি সাধকের বংশধর, পাশাপাশি তিনি নিজেও বড়পীর শেখ আবদুল কাদের জিলানী, খাজা মঈনুদ্দিন চিশতী রাহঃ সহ অসংখ্য আউলিয়ার মাজার শরীফ জিয়ারত করে নিজেকে সুফিবাদী শান্তিপ্রিয় মুসলিম হিসেবে প্রমাণ করেছেন। অথচ একটি মহল তাঁকে ইসলাম বিরোধী হিসেবে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে তাদের হীনস্বার্থে ধর্মহীন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে তৎপর আওয়ামী লীগের ছায়ায় লালিত একটি নাস্তিক্যবাদী কুচক্রী মহল। জাতির জনককে সম্মান জানাতে ওনার নামে জনকল্যানমূলক হাসপাতাল, সেতু, বিশ্ববিদ্যালয়, মসজিদ, মাদ্রাসা, স্কুল, কলেজ, শিশু ও বয়স্কদের আশ্রয় কেন্দ্র ইত্যাদি সহ ভালো কাজ যতো করা হবে, এদেশের সাধারণ মানুষের বঙ্গবন্ধু, আওয়ামী লীগ ও বর্তমান সরকারের প্রতি এদেশের সাধারণ মানুষের সমর্থন বৃদ্ধি পাবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বর্তমান সরকারের জনহিতকর যেকোনো পরিকল্পনার প্রতি ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর সমর্থন ও সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। কিন্তু মূর্তি বা ভাস্কর্য স্থাপনের নামে অপচয় ও ইসলামের দৃষ্টিতে হারাম কাজের প্রতিরোধ ও প্রতিবাদে আমরা আপোষহীন। তাই বর্তমান সরকারের কাছে আমাদের জোর দাবি, অবিলম্বে বঙ্গবন্ধু ও বিভিন্ন নেতা ও জাতীয় ব্যক্তিত্বদের নামে ভাস্কর্য স্থাপনের নামে অপচয় ও অপব্যয় এবং ইসলামে নিষিদ্ধ কাজ বন্ধ করে জাতীয় অর্থ তহবিল এর সদ্ব্যবহার করে সেতু, হাসপাতাল, বিশ্ববিদ্যালয়, মসজিদ, স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা স্থাপন সহ বিভিন্ন জাতীয় কল্যাণমূলক প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে হবে।

Comments

comments

Related Post